বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কথা

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী মহান মুক্তিযুদ্ধের মাধ্যমে ১৯৭১ সালে স্বাধীন রাষ্ট্র হিসেবে জন্ম নেয়া বাংলাদেশের স্বাধীনতা, ভূখণ্ডীয় সার্বভৌমত্ব ও ইসলামী মূল্যবোধ রক্ষার প্রতিজ্ঞা নিয়ে কাজ শুরু করে। সূচনা লগ্ন থেকে জামায়াতে ইসলামী আল্লাহর সন্তোষ অর্জন এবং পরকালীন মুক্তি পাওয়ার লক্ষ্যে বাংলাদেশকে একটি ইসলামী কল্যাণ রাষ্ট্রে পরিণত করার জন্যে আল্লাহ প্রদত্ত, রাসূল (সা) প্রদর্শিত বিধান মোতাবেক কাজ করে যাচ্ছে।

জামায়াতে ইসলামী অভ্যান্তরীণ শান্তি-শৃঙ্খলা নিশ্চিতকরণ ও বহিঃশক্তির হুমকি বা আক্রমন প্রতিহত করার লক্ষ্যে জাতীয় ঐক্য সুসংহত করণ ও ইসলামী মূল্যবোধ জাগ্রত করার চেষ্টা করে যাচ্ছে।

প্রধান সংবাদ

জাতি হিসেবে যারা আমাদেরকে মাথা উঁচু করে দাঁড়াতে দিতে চায়নি, তারাই এই নির্মম হত্যাকান্ডের নেপথ্যের অপশক্তি :মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী উত্তরের আমীর মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন বলেছেন, বুদ্ধিজীবীগণ দেশের শ্রেষ্ঠ সন্তান। জাতির এইসব জাগ্রত সন্তানদের মেধা, মনন ও মনীষা জাতিকে দিকনির্দেশনা দেয়। কিন্তু মহান বিজয়ের মাত্র দুই দিন আগে বুদ্ধিজীবীদের নির্মম ও নিষ্ঠুরভাবে হত্যার ঘটনা রীতিমত রহস্যজনক। তিনি শহীদ...

আরও পড়ুন

সর্বশেষ সংবাদ

নির্বাচনে অবৈধ প্রভাব বিস্তারের জন্য আজ্ঞাবহ লোক দিয়ে নির্বাচন কমিশন সাজিয়েছে

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর সেক্রেটারি জেনারেল ও ঢাকা-১৫ সংসদীয় আসনের ২০ দলীয় জোট মনোনীত ধানের শীষ প্রতীকের সংসদ সদস্য পদপ্রার্থী ডা. শফিকুর রহমানের...

সাংবিধানিক দায়িত্ব পালনে সীমাহীন অবহেলা ও ব্যর্থতার জন্য এই নির্বাচন কমিশনের দায়িত্বশীল ব্যক্তিদেরকে একদিন জনতার কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হবে

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রীয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য ও ঢাকা মহানগরী উত্তরের আমীর মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন বলেছেন, জননেতা ডা. শফিকুর রহমান একজন স্বনামধন্য...

মো. শফিকুল্লাহ’র মৃত্যুতে গভীর শোক প্রকাশ

বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী উত্তরের খিলক্ষেত থানার শুরা ও কর্মপরিষদ সদস্যা মাহফুজ আরার স্বামী মো. শফিকুল্লাহ গতকাল ১১ ডিসেম্বর সকাল ৮...

MSUPP2

মহানগর আমীর

মুহতারাম মুহাম্মদ সেলিম উদ্দিন বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামী ঢাকা মহানগরী উত্তরের আমীর। তিনি ১৯৯৩-৯৪ সালে এশিয়ার বৃহত্তম ছাত্র সংগঠন বাংলাদেশ ইসলামী ছাত্রশিবির মৌলভীবাজার শহর শাখার সভাপতি, ৯৫-৯৭ সালে মৌলভীবাজার জেলা সভাপতি ও ১৯৯৯-২০০০ সালে সিলেট মহানগরীর দায়িত্ব পালন করেন। ২০০১ সালে কেন্দ্রিয় প্রকাশনা সম্পাদক, ২০০২ সালে অফিস সম্পাদক, ২০০৩ সালে সেক্রেটারী জেনারেল এবং ২০০৪ ও ২০০৫ সালে কেন্দ্রিয় সভাপতির দায়িত্ব পালন করেন। তিনি একাধারে বাংলাদেশ জামায়াতে ইসলামীর কেন্দ্রিয় মজলিসে শুরা, কর্মপরিষদ ও কেন্দ্রিয় নির্বাহী পরিষদ সদস্য।

কার্যক্রম

স্মরণীয় যারা

দারসুল কুরআন

দারসুল হাদীস

প্রবন্ধ

তথ্যকোষ